grateful-to

যাঁদের অক্লান্ত পরিশ্রমের ফসল হিসেবে আমরা পেয়েছি ইসলামী সঙ্গীতের বিশাল ভান্ডার তাঁদের কথা স্মরণ করতে হয়। এ ক্ষেত্রে প্রথমেই নাম আসবে ইসলামী সংস্কৃতির পথিকৃত শ্রদ্ধেয় কবি মতিউর রহমান মল্লিকের কথা। এই মহান মানুষ ২০১০ সালে ইন্তেকাল করেন।
এই সংক্ষিপ পরিসরে সবার নাম স্মরণ করা সম্ভব নয়, আমি জানিও না।
গীতিকারঃ
কবি মতিউর রহমান মল্লিক, জাকির আবু জাফর, খাদিজা আখতার রেজায়ী, কবি গোলাম মোহাম্মদ ............(আরো যোগ হবে) সহ সকল গীতিকার। আল্লাহ তাঁদের উত্তম জাযা দান করুন।
শিল্পীঃ
কবি মল্লিক, সাইফুল্লাহ মানসুর, তারিক মুনাওয়ার, মশিউর রহমান, নোশাদ মাহফুজ, আব্দুস সালাম, আব্দুস শাকুর তুহিন, ফজলুল হক শামিল, ওবাইয়দুল্লাহ তারেক,মারুফ আল্লাম, ইকবাল হুসাঈন, শাহাবুদ্দীন, রোকনুজ্জামান ......(আরো যোগ হবে) সহ সকল শিল্পীদের প্রতি। আল্লাহ তাঁদের উত্তম জাযা দান করুন।
তত্ত্ববধানঃ
বিভিন্ন সময়ে যারা ইসলামী সঙ্গীত ও সংস্কৃতি চর্চার ব্যবস্থা করেছেন আন্দোলনের সেই সব সিপাহ সালারদের জন্যও থাকলো কৃতজ্ঞতা ও আন্তরিক দোয়া।  আল্লাহ তাঁদেরও উত্তম জাযা দান করুন।
প্রতিষ্ঠানঃ
সসাস, স্পন্দন অডিও ভিজ্যুয়াল সেন্টার তথা সিএইচপি, মাহসিন সাউন্ড সিস্টেম সহ যেসব প্রতিষ্ঠান এই মহান কাজে জড়িত তাদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। 
এছাড়াও সকল কলাকুশলীদের প্রতি অবশ্যই আমি নিজেসহ শ্রোতাদের পক্ষ থেকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

গান শেয়ার করতে ও শুনতে তেমন কোন কষ্ট নেই। কিন্তু সঙ্গীতের এই বিশাল ভান্ডার সৃষ্টি করা সহজ কথা নয়। তাই যাঁরা অক্লান্ত পরিশ্রম করে ইসলামী সংস্কৃতির প্রসারের জন্য নিরন্তর প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন/চালিয়েছেন তাঁদের জন্য অন্তর থেকে দোয়া করতে হয়।
শ্রোতাদের প্রতি অনুরোধঃ
পাশাপাশি, শ্রোতাদের অনুরোধ করব যদি আপনি ইসলামী সংস্কৃতির অবিরত প্রসার চান, তাহলে এখানে গান শোনার পাশাপাশি সুযোগ করে ক্রেতা হয়ে বিভিন্ন শিল্পী ও শিল্পীগোষ্ঠীর সিডি কিনবেন। তা না হলে, নতুন নতুন গান তৈরি হবে কী করে?
সঙ্গীতের এই চর্চা টিকে থাকবে কী করে?


0 comments:

Post a Comment